1. admin@banglardorpon.com.bd : admin :
  2. lima@banglardorpon.com.bd : Khadizatul Kobra Lima : Khadizatul Kobra Lima
  3. miraz@banglardorpon.com.bd : Miraz Uddin : Miraz Uddin
  4. ed@sbjs.org.bd : Touhidul Islam : Touhidul Islam
পুষ্টিগুণে ভরা শীতকালীন সবজির উপকারিতা - Banglar Dorpon স্বাস্থ্য,........
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন

পুষ্টিগুণে ভরা শীতকালীন সবজির উপকারিতা

সংবাদ দাতার নাম
  • সংবাদের সময় : সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৩ বার দেখা হয়েছে

হেমন্ত যেমন গায়ে শীত শীত পরশ বুলিয়ে দেয়, তেমনি বাজারে নিয়ে আসে নানা ধরনের শীতের সবজি। যদিও এখন সারা বছরই বাজারে প্রায় সব ধরনের সবজি পাওয়া যায়।কিন্তু শীতের সবজির আসল স্বাদটা কিন্তু শীতেই পাওয়া যায়। পুষ্টিগুণও থাকে অটুট। তাই সারা বছর বিভিন্ন ধরনের সবজি খেলেও শীতের সবজি খাওয়ার মজাই আলাদা।

 

আমাদের দেশে শীতের সময় বাজারে বেশি দেখা যায়- ফুলকপি, বাঁধাকপি, ব্রোকলি, লাউ, মটরশুঁটি, গাজর, লালশাক, পালংশাক, মুলা, শালগম, শিম, টেমেটো ও পেঁয়াজ কলি প্রভৃতি। পুষ্টিবিদদের মতে, শীতকালীন সবজিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম, বিটা-ক্যারোটিন, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, ফলিক এসিড, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ভিটামিন প্রভৃতি। অস্থিক্ষয় রোধে ও শরীরে রক্তকণিকা বা প্লাটিলেড গঠনে শীতকালীন শাকসবজির ভূমিকা অপরিসীম।

 

ফুলকপি: শীতকালীন অন্যতম জনপ্রিয় সবজি। ফুলকপিতে ভিটামিন এ, সি, ক্যালসিয়াম, মিনারেল, আ্যন্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইটোকেমিক্যাল ইত্যাদি রয়েছে। পানি থাকে ৮৫ % । ফুলকপিতে ফাইবার আছে। যা খাবার হজমে সহায়তা করে। ফুলকপির সালফোরাফেন উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

 

বাধাকপি: বাধাকপিতে অনেক পুষ্টি থাকে। ১০০ গ্রাম বাধাকপিতে আছে খাদ্যশক্তি ২৫ কিলোক্যালরী, শর্করা ৫.৮ গ্রাম, চিনি ৩.২ গ্রাম, খাদ্য আঁশ ২.৫ গ্রাম, চর্বি ০.১ গ্রাম, আমিষ ১.২৮ গ্রাম, ভিটামিন কে ৭৬ আইইউ, ক্যালসিয়াম ৪০ মিলিগ্রাম ইত্যাদি। বাধাকপিতে আছে প্রচুর ক্যালসিয়াম, ফসফরাস-যা হাড়কে মজবুত করে। বাধাকপি রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বৃদ্বি করে।

 

শিম: ১০০ গ্রাম শিমে ৮৬ দশমিক ১ গ্রাম জলীয় অংশ, খাদ্যশক্তি ৪৮ কিলোক্যালরী,৩.৮ গ্রাম প্রোটিন,৬.৭ গ্রাম শর্করা, ২১০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম আছে। শিমের বিচিতে প্রচুর পরিমান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি আছে যা হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। বাতের ব্যথা কমাতে সহায়ক শিম। চুলের সুরক্ষায়ও শিম ভুমিকা রাখে।

 

গাজর: গাজর আঁশযুক্ত পুষ্টিগুনে ভরা সবজি। সালাদ, রান্না, মিক্স সবজিতে দিয়ে খাওয়া যায়। গাজরের হালুয়া জনপ্রিয়। ক্যান্সার প্রতিরোধে গাজর কাজ করে। গবেষনায় দেখা গেছে- ফুসফুসের ক্যান্সার, স্তন ক্যান্সার, ক্ষুদ্রান্তে, কোলন ক্যান্সার রোধ করে গাজর। গাজরের বিটা কেরোটিন, লিউটিন কোলেষ্টেরেল কমায়। দাতের ক্ষয়ে যেসব ব্যাকটেরিয়া আছে গাজর তাদের বিরুদ্বে কাজ করে।

 

এছাড়াও শীতকালীন আরও নানা সবজি আমাদের জন্য অনেক উপকারী ও শীতকাল কে আমাদের কাছে আরও আনন্দময় করে তোলে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ