1. admin@banglardorpon.com.bd : belal :
  2. firoz@banglarsangbad.com.bd : Firoz Kobir : Firoz Kobir
  3. rubin@wfh.thewolf.club : lavonneportillo :
  4. lima@banglardorpon.com.bd : Khadizatul kobra Lima : Khadizatul kobra Lima
  5. mijuahmed2016@gmail.com : Miju Ahmed : Miju Ahmed
  6. lon@wfh.thewolf.club : roboshaughnessy :
  7. test23519785@wintds.org : test23519785 :
  8. test36806100@wintds.org : test36806100 :
  9. test37402178@wintds.org : test37402178 :
  10. test38214340@wintds.org : test38214340 :
  11. test40493353@wintds.org : test40493353 :
  12. test9417170@wintds.org : test9417170 :
  13. rona@wfh.thewolf.club : waldo43b400667 :
জেনে নিন স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নবীজি (সা.)-এর তিন সুন্নত
বাংলার দর্পন পরিবারে আপনাকে স্বাগতম...!!!

এখন সময় দুপুর ১২:০২ আজ রবিবার, ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




জেনে নিন স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নবীজি (সা.)-এর তিন সুন্নত

রিপোর্টার
  • সংবাদ সময় : শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৪ বার দেখা হয়েছে
জেনে নিন স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নবীজি (সা.)-এর তিন সুন্নত

মহানবী (সা.)-এর সুন্নতগুলো শুধু পরকালীন মুক্তির জন্য নয়; বরং ইহকালেও তা মানুষের জন্য সবিশেষ উপকারী। নিম্নে নবীজি (সা.)-এর তিনটি বিশেষ সুন্নতের উল্লেখ করা হলো—

১. হাঁটা : আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের নির্দেশনা অনুযায়ী শারীরিক সুস্থতার অন্যতম প্রধান উপাদান হলো হাঁটা ও শরীরচর্চা করা । রাসুল (সা.) ১৪০০ বছর আগে এ বিষয়ে উম্মতকে দিকনির্দেশনা দিয়ে গেছেন। আবু হুরায়রা (রা.) বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর চেয়ে দৃঢ় পদক্ষেপে দ্রুত চলতে আর কোনো ব্যক্তিকে দেখিনি। যেন তাঁর জন্য জমিনকে গুটানো হতো। তাঁর সঙ্গে পথ চলতে আমাদের প্রাণান্তকর অবস্থা হতো, আর তিনি অনায়াসে চলতে পারতেন। (সহিহ ইবনে হিব্বান, হাদিস : ৬৩০৯)

মসজিদে কুবা মদিনা থেকে কয়েক মাইল দূরে অবস্থিত। মহানবী (সা.) প্রায় হেঁটে মসজিদে কুবায় যেতেন। আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) বলেন, নিশ্চয়ই রাসুলুল্লাহ (সা.) মসজিদে কুবায় আসতেন কখনো আরোহী হয়ে, কখনো হেঁটে। (সহিহ বুখারি, হাদিস : ১১৯৪)

২. শারীরিক পরিশ্রম করা : কায়িক পরিশ্রম শরীরিক সুস্থতার অন্যতম কার্যকরী মাধ্যম। শারীরিক পরিশ্রম করা নবীদের অনুসৃত সুন্নত। উম্মুল মুমিনিন আয়েশা (রা.)-কে প্রশ্ন করা হলো, রাসুলুল্লাহ (সা.) ঘরে কী করতেন? জবাবে তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) কাপড় সেলাই করতেন এবং নিজের জুতা নিজেই ঠিক করতেন। (সহিহ ইবনে হিব্বান, হাদিস : ৫৬৭৭)। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী (সা.) বলেছেন, আল্লাহ তাআলা এমন কোনো নবী প্রেরণ করেননি, যিনি ছাগল চরাননি। তখন সাহাবিরা প্রশ্ন করেন, আপনিও? তিনি বলেন, হ্যাঁ, আমি কয়েক কিরাতের (মুদ্রা) বিনিময়ে মক্কাবাসীদের ছাগল চরাতাম। (সহিহ বুখারি, হাদিস : ২১১৯)

মিকদাদ (রা.) থেকে বর্ণিত, মহানবী (সা.) বলেছেন, আল্লাহর নবী দাউদ (আ.) নিজের হাতের উপার্জনে আহার করতেন। (সহিহ বুখারি, হাদিস : ২০২৭)

৩. শেষ রাতে জাগরণ : রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, ‘তোমাদের রাতের সালাত (তাহাজ্জুদ) আদায়ে অভ্যস্ত হওয়া উচিত। কেননা, এটা হলো তোমাদের পূর্ববর্তী নেককারদের অনুসৃত রীতি। রাতের সালাত আল্লাহর নৈকট্যলাভ ও গুনাহ থেকে বাঁচার উপায়, মন্দ কাজের কাফফারা ও শারীরিক রোগের প্রতিরোধক।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ৩৫৪৯)

লেখক : মুহাদ্দিস, ইসলামিয়া মহিলা

কামিল মাদরাসা, কক্সবাজার

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো খবর



প্রকৌশল সহযোগিতায়: মোঃ বেলাল হোসেন