1. ashik@banglardorpon.com.bd : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  2. admin@banglardorpon.com.bd : belal :
  3. firoz@banglarsangbad.com.bd : Firoz Kobir : Firoz Kobir
  4. rubin@wfh.thewolf.club : lavonneportillo :
  5. lima@banglardorpon.com.bd : Khadizatul kobra Lima : Khadizatul kobra Lima
  6. mijan@banglardorpon.com.bd : Mijanur Rahman : Mijanur Rahman
  7. lon@wfh.thewolf.club : roboshaughnessy :
  8. rona@wfh.thewolf.club : waldo43b400667 :
শিক্ষার্থীদের ‘টিকা’ দেওয়ার পর খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়
বাংলার দর্পন পরিবারে আপনাকে স্বাগতম...!!!

এখন সময় রাত ৪:৫৮ আজ শনিবার, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে রজব, ১৪৪২ হিজরি




শিক্ষার্থীদের ‘টিকা’ দেওয়ার পর খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়

রিপোর্টার
  • সংবাদ সময় : সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
  • ১২ বার দেখা হয়েছে
শিক্ষার্থীদের ‘টিকা’ দেওয়ার পর খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ১১ মাস দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় আবাসিক হল খুলে দেওয়ার দাবিতে আন্দোলন করছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তবে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির কারণে হলগুলো এখনই খোলার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদের ‘করোনা টিকা’ দেওয়ার পর খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়।

আগামীকাল (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের নিয়ে এ বিষয়ে একটি বৈঠক করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ ।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি মোকাবেলার অংশ হিসেবে গত বছরের মার্চের ১৭ তারিখ থেকে দেশের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, শিক্ষা কার্যক্রম চালুর সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে পরিবেশ ঝুঁকিমুক্ত করতে হবে। সেক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের পরেই শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেয়ার একটি পরিকল্পনা করা হচ্ছে। ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ হলে বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে।

চলতি মাসের ৭ তারিখ থেকে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন বা টিকা দেয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শুরুতে মহামারি মোকাবেলায় সম্মুখসারির কর্মী ও ৫৫ বছরের বেশি বয়সী দেয়ার কথা থাকলেও, টিকাদান কর্মসূচী শুরুর একদিন পরেই বয়সসীমার শর্ত কিছুটা শিথিল করে সরকার। এখন পর্যন্ত সম্মুখসারির কর্মী এবং ৪০-ঊর্ধ্ব বয়সীরা টিকা নিতে পারছেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা সংক্রমণের মহামারি। হঠাৎ করে শিক্ষার্থীদের বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার একটি পরিকল্পনা করেছে সরকার। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

অধ্যাপক চন্দ বলেন, বিশ্বের অন্য দেশের মতো আমাদের দেশে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা টিকা নিচ্ছেন। এরপরের ধাপে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে যে শিক্ষার্থীরা থাকেন, তাদেরও টিকা দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্পন্ন হলেই বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হতে পারে। তবে কবে নাগাদ শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হবে সেই সম্পর্কে কিছু বলতে পারেননি অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ।

তিনি আরো বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয়ভাবে নেয়া হবে, অর্থাৎ শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন এবং সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের আলোচনার পরই খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো খবর



প্রকৌশল সহযোগিতায়: মোঃ বেলাল হোসেন